বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সাংসদ হারুনুর রশীদ প্রথম আলোকে বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার সীমানা পরিবর্তনসংক্রান্ত বিষয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগ বা সরকারের নীতিগত কোনো সিদ্ধান্ত নেই বা প্রক্রিয়াধীনও নয়। উচ্চ আদালত কর্তৃক প্রদত্ত ছয় মাস সময়সীমার মধ্যে এখনো অনেক সময় অবশিষ্ট আছে। ফলে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে আইনগত কোনো বাধা নেই। কতিপয় ব্যক্তি নির্বাচনকে বিলম্বিত করার অসৎ উদ্দেশ্যে উচ্চ আদালতে রিট করেছেন। ওই রিটের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন ২৬ অক্টোবর নির্বাচন স্থগিতের আদেশ দিয়েছে। নির্বাচন কমিশনের ওই আদেশ নিতান্তই অনাকাঙ্ক্ষিত। এ অবস্থায় নির্বাচন স্থগিতের আদেশ প্রত্যাহারপূর্বক নির্বাচনের বাকি প্রক্রিয়া অতিদ্রুত শেষ হওয়া প্রয়োজন।

সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের আতাহার গ্রামের মো. আলাউদ্দিন প্রায় পাঁচ-ছয় মাস আগে ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদের ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডের আতাহার, বুলনপুর, হোসেনডাঙ্গা, বৈলঠা, বিল বৈলঠা, কালুপুরসহ বিভিন্ন গ্রাম পৌরসভার অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে উচ্চ আদালতে একটি রিট করেন। মো. আলাউদ্দিন প্রথম আলোর কাছে উচ্চ আদালতে রিট করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আগামী ২ নভেম্বর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্বাচন কমিশন উচ্চ আদালতে করা রিটের পরিপ্রেক্ষিতে ২৬ অক্টোবর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন স্থগিত করার আদেশ দেয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন