চারঘাটে ঘর থেকে হাত-পা বাঁধা নারীর লাশ উদ্ধার

বিজ্ঞাপন
default-image

রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় নিজ ঘর থেকে হাত-পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে চারঘাট উপজেলার ৫ নম্বর চারঘাট ইউনিয়নের অনুপমপুর গ্রাম থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ ওই নারীর স্বামীকে আটক করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, নিহত নারীর নাম রেহেনা বেগম (৬০)। তিনি ওই গ্রামের বেলাল হোসেনের (৭৫) ষষ্ঠ স্ত্রী ছিলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অনুপমপুর গ্রামের বেলাল হোসেন ছয়টি বিয়ে করেছেন। এক স্ত্রীর সংসারে তাঁর এক মেয়ে আছে। তাঁরা অন্যত্র থাকেন। যে বাড়ি থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে, ওই বাড়িতে বেলাল হোসেন ও রেহেনা বেগম থাকতেন।

আজ সকালে গ্রামবাসী জানতে পারেন, বেলাল হোসেনের স্ত্রীকে কে বা কারা হাত-পা ও মুখ বেঁধে হত্যা করেছে। রাতে স্বামী বেলাল হোসেন বাড়ির বারান্দায় ঘুমাচ্ছিলেন বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসীকে। পরে গ্রামবাসী পুলিশকে খবর দেন। সকালে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজে পাঠায়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোশারফ হোসেন বলেন, বেলাল হোসেনের সঙ্গে প্রতিবেশীর কারও চলাফেরা নেই। তিনি ওই বাড়িতে তাঁর ওই স্ত্রীকে (নিহত রেহেনা) নিয়েই থাকতেন। বাড়িতে আর কোনো সদস্য নেই। বেলাল হোসেন বেশ কয়েকটি বিয়ে করেছেন। কোনো স্ত্রী মারা গেছেন। কোনো স্ত্রী চলে গেছেন। কোনো স্ত্রী ওই গ্রামের অন্য জায়গায় বাড়ি বানিয়ে থাকছেন।

চারঘাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সমিত কুমার কুন্ডু বলেন, নিহত নারীর স্বামীকে পুলিশ সন্দেহের তালিকায় রেখেছে। তাঁকে আটক করা হয়েছে। নিহত নারীর ভাই এ ঘটনায় বাদী হয়ে মামলা করবেন বলে পুলিশকে জানিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন