default-image

দিনাজপুরে পুলিশের গাড়িকে সাইড দিতে বিলম্ব করায় চালককে মারধরের ঘটনায় জেলার সব রুটে বাস চলাচল বন্ধ রেখেছেন জেলা মোটর পরিবহনশ্রমিকেরা। এতে দিনাজপুর থেকে বিভিন্ন জায়গায় যাওয়া যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়েছেন।

আজ শনিবার সকাল থেকে মহাসড়কের ওপর বাস, ট্রাক দিয়ে ব্যারিকেড দিয়ে বিক্ষোভ করেন বাসশ্রমিকেরা। চালককে মারধরের বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধান না হওয়া পর্যন্ত শ্রমিকেরা যান চলাচল শুরু করবেন না বলে জানিয়েছেন।

কয়েকজন বাসশ্রমিক অভিযোগ করে বলেন, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে নুসরাত পরিবহনের একটি বাস রিজার্ভ যাত্রী নিয়ে রংপুরের বিনোদনকেন্দ্র ভিন্ন জগতে যাওয়ার পথে চিরিরবন্দর উপজেলার চাম্পাতলী এলাকায় পুলিশের পিকআপ ভ্যানকে সাইড দিতে বিলম্ব হয়। পুলিশ এ সময় লাঠি নিয়ে নুসরাত পরিবহনের চালক হযরত আলীর ওপর এলোপাতাড়িভাবে আঘাত করে। এতে ওই চালক গুরুতর আহত হন।

বিজ্ঞাপন

সকালে চালককে আহত করার খবরটি টার্মিনালসহ বাস শ্রমিক সংগঠনগুলোর মাঝে ছড়িয়ে পড়লে শ্রমিকেরা টার্মিনাল এলাকায় মহাসড়কের ওপর এলোপাতাড়িভাবে যানবাহন রেখে অবরোধ ও বিক্ষোভ করতে থাকেন।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (অপারেশন) গোলাম মওলা আজ বেলা দেড়টার দিকে মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে শ্রমিক পুলিশের মধ্যে ভুল–বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছে। আমরা শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছি। দ্রুত সমস্যার সমাধান হবে।’

একই কথা বলছেন, দিনাজপুর মোটর পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক শেখ বাদশা। তিনি বলেন, যান চলাচল আপাতত বন্ধ রয়েছে, উভয় পক্ষের আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি নিষ্পত্তি করার চেষ্টা চলছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন