বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

থানা-পুলিশ সূত্র জানায়, গতকাল সোমবার সকাল পৌনে নয়টায় চিরিরবন্দর উপজেলার বাসিন্দা আবদুল লতিফের স্ত্রী জায়েদা বেগম দিনাজপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। বেলা তিনটার দিকে জায়েদা বোনকে নিয়ে শৌচাগারে যান। এ সময় পাশে থাকা এক নারী নবজাতককে তাঁর কাছে রেখে যেতে বলেন। তাঁরা ওই নারীর কোলে নবজাতককে দেন। শৌচাগার থেকে ফিরে তাঁরা ওই নারীকে আর দেখতে পাননি। নবজাতককেও পাননি। পরে পুলিশ ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা দেখে ওই নারীকে শনাক্ত করে।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানা-পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় নবজাতকের বাবা আবদুল লতিফ আজ সকালে একটি অপহরণ মামলা করেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ নবজাতককে মোটাশাহ পাড়া থেকে উদ্ধার করে। পরে বেলা দেড়টায় দিনাজপুর পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন নবজাতককে নিয়ে হাসপাতালে যান ও তাকে মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেন।

আসাদুজ্জামান আরও বলেন, শিউলিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। শিউলি পুলিশকে কিছু তথ্য দিয়েছেন। তাঁর সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছেন কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন