default-image

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলায় জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক নারীর (৪৪) মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা জানতে তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ওই নারীর বাড়িসহ পাঁচটি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, চার দিন আগে ওই নারী যশোরে বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান। সেখানে অসুস্থবোধ করলে গত মঙ্গলবার নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন। বাড়ি ফিরে তিনি জ্বর, সর্দি, কাশি ও ডায়রিয়ায় ভুগে গতকাল রাতে মারা যান।

ওই নারীর অসুস্থতার খবর পেয়ে উপজেলা প্রশাসনের একটি প্রতিনিধি দল গতকাল বিকেলেই তাঁর বাড়িতে যান। প্রাথমিকভাবে ওই বাড়িসহ তিনটি বাড়ি লকডাউন করা হয়। রাতে ওই নারীর মৃত্যুর খবর পেয়ে জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক আবদুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে স্বাস্থ্য বিভাগের একটি দল ওই নারীর নমুনা সংগ্রহ করেন।

জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জুলিয়েট পারউইন বলেন, ওই নারী সর্দি, কাশি, জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়াতে ভুগছিলেন। তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষার জন্য নমুনা ঢাকার রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) পাঠানো হবে।

জীবননগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, মৃত নারীর বাড়িসহ আশপাশের পাঁচটি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সিরাজুল ইসলাম বলেন, 'করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া ওই নারীকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় রাতেই দাফন করা হয়েছে।'

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0