default-image

বেশ কয়েক দিন ধরে চুয়াডাঙ্গায় মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ চলছে। তাপমাত্রা কমে আসার পাশাপাশি উত্তরের হিমেল হাওয়ায় জবুথবু অবস্থা। এমন পরিস্থিতির মধ্যে চুয়াডাঙ্গায় শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে প্রথম আলো ট্রাস্ট। শনিবার বিকেলে শহরের রাহেলা খাতুন গার্লস একাডেমি চত্বরে ২০০ শীতার্ত মানুষকে দেওয়া হয়েছে কম্বল।

এই কম্বল বিতরণ কার্যক্রমের প্রতিপাদ্য ছিল ‘মুখে মাস্ক-গায়ে কম্বল’। প্রথম আলো বন্ধুসভার চুয়াডাঙ্গার সদস্যরা কয়েক দিন ধরে পৌরসভার বিভিন্ন মহল্লা, আলোকদিয়া, শংকরচন্দ্র ও মোমিনপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে শীতার্ত মানুষের কাছে কম্বলের স্লিপ পৌঁছে দেন। সেই স্লিপের ভিত্তিতে কম্বল বিতরণ করা হয়েছে। কম্বল বিতরণের আগে শীতার্ত মানুষকে প্রথম আলোর পক্ষ থেকে নতুন মাস্ক দেওয়া হয়।

কম্বল পেয়ে ৬৫ বছর বয়সী রেলওয়ে বস্তির বাসিন্দা প্রতিবন্ধী ইব্রাহিম হোসেন বলেন, ‘অনেকেই কম্বল দেয় শুনি। কিন্তু এবেড্ডাই (এবার) হাতে পালাম।’ পৌর এলাকার সরদারপাড়ার জাহানারা বেগম বলেন, ‘গ্যালো ক দিন কালা জারের ঠ্যালায় ঘুমাতিই পারচিনে। এবেড্ডা ওমে ওমে ঘুম হবেনে।’

বিজ্ঞাপন

অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শীতার্ত লোকজনের হাতে কম্বল তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো. নজরুল ইসলাম সরকার প্রধান। তিনি বলেন, শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে প্রথম আলো সময়োপযোগী কাজ করেছে। সরকারি উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি এ ধরনের আয়োজন খুবই প্রয়োজন।

কম্বল বিতরণ কার্যক্রমে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাহেলা খাতুন গার্লস একাডেমির প্রধান শিক্ষক হাবিবুর রহমান, জীবননগর উপজেলা লোকমোর্চার সভাপতি আবুল কালাম, প্রথম আলোর প্রতিনিধি শাহ আলম, বন্ধুসভার সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন, সহসভাপতি মোহাইমিনুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক তিন্নি বুলবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ আল আরাফাত ও জেসিকা সুলতানা, সাংগঠনিক সম্পাদক সানজিদ আহমেদ, উপসাংগঠনিক সম্পাদক শাবনুর খাতুন, নারীবিষয়ক সম্পাদক উম্মে হাবিবা, পাঠচক্র সম্পাদক অনিক মাহমুদ, যোগাযোগ সম্পাদক সাম্য বিশ্বাস, প্রচার সম্পাদক মেহেরাব্বীন সানভী, মানবসম্পদ-বিষয়ক সম্পাদক সাব্বির আহমেদ, দপ্তর সম্পাদক মুনেম রহমান মালিক, প্রশিক্ষণ সম্পাদক কানিজ সুলতানা, অর্থ সম্পাদক কিংকর কুমার দে, সমাজকল্যাণ সম্পাদক সাইদুর রহমান, ক্রীড়া সম্পাদক আলিফ হোসেন দুর্নিবার, অনুষ্ঠান সম্পাদক বশির আহমেদ, দুর্যোগ ও ত্রাণ সম্পাদক মানিক মেহেদী।

কম্বল বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মো. জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘প্রথম আলোর স্লোগান ভালোর সাথে আলোর পথে, অসহায় শীতার্ত মানুষকে কম্বল ও মাস্ক দিয়ে আবারও যার সত্যতা প্রমাণিত হলো।’

সংবাদ প্রকাশের পাশাপাশি মানবিক দিক দিয়েও প্রথম আলোই সেরা বলে মন্তব্য করেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আলমগীর হোসেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন