default-image

লালমনিরহাটের কালীগঞ্জে বিষাক্ত চোলাই মদপানে দুজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে মদপানের পর অসুস্থ ব্যক্তিদের শনিবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে দুজনের মৃত্যু হয়।

মারা যাওয়া দুজন হলেন উপজেলার চলবলা ইউনিয়নের বান্দেরকুড়া গ্রামের খয়বর আলীর ছেলে হাফিজুর রহমান (২৪) এবং একই গ্রামের বাংরু বর্মণের ছেলে রণজিৎ চন্দ্র বর্মণ। এ ঘটনায় চলবলা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য সেকেন্দার আলীসহ (৫০) তিনজন অসুস্থ হয়ে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে কালীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আরজু মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে বান্দেরকুড়া গ্রামে কয়েকজন বিষাক্ত চোলাই মদ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। শুক্রবার স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন জায়গায় চিকিৎসা নেন। কিন্তু সুস্থ না হওয়ায় শনিবার সকালে অসুস্থ ব্যক্তিদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ভর্তির পর হাফিজুর রহমান ও রণজিৎ মারা যান। সেকেন্দার আলী মেম্বারসহ বাকি তিনজন চিকিৎসা নিচ্ছেন।

ওসি সাজ্জাদ হোসেন বলেন, সাধারণত সামাজিক কারণে মদ্যপানে কেউ মারা গেলে অনেক সময় অভিযোগ দেয় না। তবে জোর করে মদ খাওয়ানো হলে অভিযোগ করেন। এ ক্ষেত্রে কী হবে, সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না। থানায় কেউ অভিযোগ করলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0