default-image

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে এক ছাত্রলীগ নেতার কবজির রগ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষ। গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার বাঙ্গাবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ওই ছাত্রলীগ নেতার নাম আতিকুর রহমান। তিনি ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য। আতিকুর উপজেলার শিংপাড়া গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে। তিনি বর্তমানে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ওই ঘটনার পর আহত আতিকুরের বড় ভাই নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে মামলা করেছেন। মামলায় বাঙ্গাবাড়ীর জুনায়েদুল আজম ওরফে জিমকে (২৬) প্রধান আসামি ও অজ্ঞাত ১০-১২ জনকে আসামি করা হয়েছে। এঁদের মধ্যে মো. নাসিম (৩৫), মো. রাজিব (২০) ও মো. মেহেদিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি।

বিজ্ঞাপন

গোমস্তাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দিলীপ কুমার দাস প্রথম আলোকে জানান, ধারালো অস্ত্রের কোপে ছাত্রলীগ নেতার হাতের কবজির রগ কেটে গেলেও বিচ্ছিন্ন হয়নি। পূর্বশত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষ এই হামলা চালিয়েছে বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

মামলার বাদী নুরুল ইসলাম বলেন, তাঁর ভাইয়ের হাতের কবজির তিনটি রগ কেটে গেছে। তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মন্তব্য পড়ুন 0