ছাত্রলীগ নেতার কবজি বিচ্ছিন্ন করার মামলার দুই আসামি গ্রেপ্তার

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় ছাত্রলীগ নেতা শুভ শীলের (২০) ডান হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় হওয়া মামলার প্রধান আসামিসহ দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে ঢাকার গুলশান এলাকার একটি বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বিজ্ঞাপন
default-image

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় ছাত্রলীগ নেতা শুভ শীলের (২০) ডান হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন করার ঘটনায় হওয়া মামলার প্রধান আসামিসহ দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে ঢাকার গুলশান এলাকার একটি বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার দুজন হলেন প্রধান আসামি শাকিল আহমেদ ওরফে সাদী (২৫) ও তানভীর আহমেদ (২২)। তাঁদের মধ্যে শাকিল আহমেদের বাড়ি মঠবাড়িয়া উপজেলার বড়মাছুয়া গ্রামে এবং তানভীর আহমেদের বাড়ি উপজেলার দক্ষিণ বড়মাছুয়া গ্রামে।
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মঠবাড়িয়া থানার ওসি এ জেড এম মাসুদুজ্জামান জানান, মামলার প্রধান আসামি শাকিল আহমেদ ও ৩ নম্বর আসামি তানভীর আহমেদ রাজধানীর গুলশান এলাকায় একটি বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন। তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে পুলিশ তাঁদের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ার পর ওই বাড়ি থেকে তাঁদের গ্রেপ্তার করে। আজ দুপুরে গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের মঠবাড়িয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মঠবাড়িয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শহিদুল ইসলাম। বিচারক আল ফয়সাল আসামিদের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মামলা ও পুলিশ সূত্র জানায়, ১৮ আগস্ট রাতে শুভ শীল মঠবাড়িয়া শহর থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। রাত সাড়ে আটটার দিকে স্থানীয় ওহাবিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসার এলাকায় (স্লুইসগেট এলাকা) পৌঁছালে আগে থেকে ওত পেতে থাকা শাকিল আহমেদের নেতৃত্বে কয়েকজন শুভ শীলের ওপর হামলা করেন। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাঁরা শুভ শীলের ডান হাতের কবজি বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শুভ শীল মঠবাড়িয়া পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি পৌরসভার দক্ষিণ মিঠাখালী গ্রামের শ্যামল চন্দ্র শীলের ছেলে। এ ঘটনায় ১৯ আগস্ট রাতে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মসিউর রহমান বাদী হয়ে ১৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ২০ জনকে আসামি করে মামলা করেন। মামলায় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলামকেও আসামি করা হয়। স্থানীয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে এ ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন