default-image

ঢাকার সাভারে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে এক কনস্টেবল আহত হয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার রাতে পৌরসভার আনন্দপুর মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে। আহত কনস্টেবলের নাম রাব্বি (২৫)। তিনি সাভার থানার গাড়িচালক।

এদিকে বুধবার ভোরে অভিযান চালিয়ে সাভারের বিভিন্ন এলাকা থেকে আরও আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার রাতে দায়িত্ব পালন শেষে বাড়ি ফিরছিলেন সাভার নামাগ্যান্ডা এলাকার ইকবাল হোসেন। তিনি বিভিন্ন বাসে সুপারভাইজারের চাকরি করেন। রাত সাড়ে ১২টার দিকে পৌর এলাকার আনন্দপুর জামে মসজিদের পাশে পৌঁছালে সাব্বির ও জহিরুল নামের দুই ব্যক্তি কথা আছে বলে তাঁকে মসজিদের পাশে প্রাচীরঘেরা একটি নির্জন স্থানে নিয়ে যান। সেখানে আরও ১০ থেকে ১২ জন ছিনতাইকারী আগে থেকেই অবস্থান করছিল। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা ইকবালের হাত-পা ও মুখ বেঁধে ফেলে। এরপর তাঁকে ছেড়ে দেওয়ার বিনিময়ে তাঁর কাছে ২৫ হাজার টাকা দাবি করে। তিনি টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তারা তাঁর পকেটে থাকা ৫ হাজার ৩০০ টাকা ও মুঠোফোন ছিনিয়ে নেয়। এরপর দাবি করা বাকি টাকা পরে দেওয়ার আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে তারা রাত দেড়টার দিকে তাঁকে ছেড়ে দেয়। টাকা না দিলে তাঁকে হত্যার হুমকিও দেওয়া হয়।
ইকবাল হোসেন বলেন, ছাড়া পাওয়ার পর এক পথচারীর মুঠোফোনে তিনি বিষয়টি জরুরি সেবা ৯৯৯–এ জানান। এর আধা ঘণ্টার মধ্যে সাভার থানার উপপরিদর্শক (এসআই) পাভেল মোল্লা পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছিনতাইকারীদের ধরতে অভিযান চালান। এ সময় পুলিশ ছিনতাইকারীদের হামলার শিকার হন।

বিজ্ঞাপন

হামলা ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় ইকবাল হোসেন ও এসআই পাভেল মোল্লা আজ বুধবার সাভার থানায় পৃথক দুটি মামলা করেছেন। মামলায় সাব্বির, জহিরুলসহ ১৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে রাত দুইটার দিকে পুলিশ প্রাচীরঘেরা নির্জন স্থানে পৌঁছে সাব্বির ও জহিরুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় সাব্বির তাঁর কাছে থাকা ছুরি দিয়ে রাব্বির পেট, বুক ও গলায় আঘাত করেন। এর আগেই বাকিরা পালিয়ে যান। আহত সাব্বিরকে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে বুধবার ভোরে অভিযান চালিয়ে সাভারের বিভিন্ন এলাকা থেকে আরও আটজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁরা হলেন লাল মিয়া (২০), মোহাম্মদ আলী (২৮), রহিম (২৪), রাশেদ (২৬), নজরুল ইসলাম (৩৮), আল-আমিন (৩০), কামাল হোসেন (৩৩) ও সুজন সিকদার (৪৩)।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন