default-image

গরু কিনে ট্রলিতে ওঠাচ্ছিলেন বাবা ও ছেলে। হঠাৎ গরুটি ছুটে গিয়ে পাশের ধানখেতে পড়ে থাকা বিদ্যুতের ছেঁড়া তারে জড়িয়ে যায়। ধরতে গেলে গরুসহ ছেলে বিদ্যুতায়িত হন। এরপর ছেলেকে উদ্ধার করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন বাবাও। এতে বাবা ও ছেলে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

আজ বুধবার দুপুরে ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার পশ্চিম বাখাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এতে আরও একজন আহত হয়েছেন। গরুটিও মারা গেছে।

বিজ্ঞাপন

মারা যাওয়া দুজন হলেন কুঠুরাকান্দা গ্রামের ইদ্রিস আলী (৬০) ও তাঁর ছেলে আবদুল মালেক (৩৫)। আহত ব্যক্তি হলেন পশ্চিম বাখাই গ্রামের সুজন মিয়া।

জানতে চাইলে ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমারত হোসেন বলেন, খবর পেয়ে তাঁদের লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে পরিবারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাঁদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
সার্ভিস লাইনটি ছিঁড়ে পড়ে থাকলেও কেউ জানাননি।
হেলাল উদ্দিন, সহকারী প্রকৌশলী, বিদ্যুৎ বিভাগ

স্থানীয় কয়েকজন জানান, আজ দুপুরে ইদ্রিস আলী ও আবদুল মালেক পশ্চিম বাখাই গ্রামে সুজন মিয়ার কাছ থেকে গরু কিনতে যান। ইদ্রিস ও আবদুল মালেক গরু কিনে ট্রলিতে ওঠাচ্ছিলেন। এ সময় গরুটি ছুটে পাশের ধানখেতে যায়। সেখানে পড়ে থাকা বিদ্যুতের ছেঁড়া তারে জড়িয়ে যায় গরুটি। সেটি ধরতে গেলে বিদ্যুতায়িত হয়ে গরুসহ মালেক মারা যান। মালেককে উদ্ধার করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ইদ্রিস আলীরও মৃত্যু হয়। এ সময় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে সুজন মিয়া আহত হন।

বিজ্ঞাপন

এলাকাবাসীর অভিযোগ, চার দিন ধরে বিদ্যুতের তার ছিঁড়ে পড়ে থাকলেও না সরানোর কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এর আগে বিদ্যুতায়িত হয়ে অনেক মাছ ও সাপও মরে ভেসে উঠেছিল।

জানতে চাইলে বিদ্যুৎ বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী হেলাল উদ্দিন বলেন, সার্ভিস লাইনটি ছিঁড়ে পড়ে থাকলেও কেউ জানাননি।

মন্তব্য পড়ুন 0