default-image

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় দুই শিশুর ঝগড়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে গুরুতর আহত তিনজনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপর দুজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

পুলিশ ও এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের নাদামপুর খালপাড় গ্রামের আবদুল গফুর ও একই গ্রামের কালা মিয়া পক্ষের লোকজনের মধ্যে আজ সোমবার সন্ধ্যায় দুই শিশুর মধ্যে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়া ও কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে দুই পক্ষের অভিভাবকেরা এ নিয়ে সংঘর্ষের জড়িয়ে পড়েন। এতে কদরিছ মিয়া (৭০), আব্দুস ছত্তার (৯০), আল আমীন (১২), ফজল মিয়া (৪৩) ও আতিক মিয়া (৫০) আহত হন। তাঁদের মধ্যে কদরিছ মিয়া, আব্দুস ছত্তার ও আল আমীনকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ফজল মিয়া ও  আতিক মিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক খোকন চন্দ্র সাহা বলেন, আহত পাঁচজনের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদের সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহতরা সবাই দেশীয় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী জগন্নাথপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সংঘর্ষের সঙ্গে জড়িতরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি। এখনো কোনো মামলা হয়নি।’

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন