বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তার আবদুল্লাহ আল নোমানের বাড়ি শেরপুর শহরের পাশে সান্যালপাড়ায়। তিনি শেরপুর ডিগ্রি কলেজের ছাত্র। মামলার তদন্ত কর্মকর্তার শেরপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রামজীবন ভৌমিক বলেন, ওই তরুণী এবার এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন। স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাঁকে গতকাল বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়।

মামলার এজাহারে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন তরুণী। বিয়ের কথা বলে ২০২০ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর প্রথমবার ধর্ষণ, একই বছরের ৩ মার্চ দ্বিতীয়বার ধর্ষণ ও সর্বশেষ ২০২১ সালের ১৮ ডিসেম্বর ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে মামলায় তরুণী উল্লেখ করেছেন।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম বলেন, তরুণীর করা ধর্ষণ মামলায় আবদুল্লাহ আল নোমানকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন