বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় মেয়র পদে লড়াইয়ে নেমেছেন চারজন। ১৫টি ওয়ার্ডে ৮০ জন কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী রয়েছেন ২০ জন। পৌরসভার মোট ভোটারের সংখ্যা ৭১ হাজার ৩২২।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে লক্ষ্মীপুর পৌরসভায় টানা দুবার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আবু তাহের। তবে বর্তমান মেয়র আবু তাহের এবার নৌকার মনোনয়ন পাননি। লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়াকে এবার আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। মেয়র পদে তাঁর বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ইসলামী শাসনতন্ত্রের জহির উদ্দিন, এনডিএমের আবদুর রহিম স্বপন এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও লক্ষ্মীপুর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি জহির আল মামুন।

মোজাম্মেল হায়দার প্রথম আলোকে বলেন, ‘মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের পর থেকেই এলাকায় নেমেছি। সারা দিন ঘুরছি ভোটারদের কাছে। ভোটারদের কাছে গিয়ে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। গভীর রাত পর্যন্ত মুঠোফোনে নেতা-কর্মী ও সমাজের গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিদের সঙ্গেও কথা বলছি।’

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জহির আল মামুন জানান, সারা দিন তিনি ভোটারদের বাড়ি বাড়ি ঘুরছেন, রাতে বাসায় গিয়ে কর্মীদের নিয়ে বৈঠক করছেন। নিজের জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী বলে জানান তিনি।

এদিকে পৌরসভা নির্বাচন ঘিরে ভোটারদের মধ্যেও ব্যাপক আগ্রহ দেখা গেছে। এবারের নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ভোট দেবেন বাঞ্ছানগর এলাকার মাসুদ আলম। তিনি জানান, পৌরসভার উন্নয়নের জন্য তিনি এবার নতুন নেতৃত্ব চান। মাদকমুক্ত সমাজ ও নাগরিক উন্নয়ন নিশ্চিত করবে, এমন প্রার্থীকেই ভোট দেবেন বলে জানান তিনি।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ নাজিম উদ্দিন জানান, নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ভোটাররা যেন নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারেন, সে জন্য নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন