default-image

পল্লিকবি জসীমউদ্‌দীন গ্রামবাংলার সাধারণ মানুষের সুখ–দুঃখ, হাসি–কান্নার কথা তাঁর কবিতা ও সাহিত্যে তুলে ধরেছেন। তিনি বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছেন। প্রয়োজনে প্রতিনিয়ত জসীমউদ্‌দীনকে নিয়ে গবেষণা করতে হবে। তাঁকে নতুন করে আবিষ্কার করতে হবে। কবির ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রোববার ফরিদপুরে এক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

রোববার সকালে জেলা প্রশাসন ও জসীম ফাউন্ডেশন ফরিদপুর শহরতলির গোবিন্দপুরে এই সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, ‘কবি জসীমউদ্‌দীনকে নিয়ে আমাদের প্রতিনিয়ত গবেষণা করতে হবে। তাঁর সাহিত্যকর্ম সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। এ উপলক্ষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে নানা রকম প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে হবে।’

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ফরিদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক দীপক কুমার রায়। বক্তব্য দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা, ফরিদপুর মুসলিম মিশনের সাধারণ সম্পাদক এম এ সামাদ, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ মোশারফ আলী, সরকারি সারদা সুন্দরী মহিলা কলেজের অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা, অম্বিকাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ চৌধুরী বারি, আনসার উদ্দিন উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবু জাফর, জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি আক্কাস হোসেন, রাজেন্দ্র কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রেজভী জামান প্রমুখ।
এর আগে কবির সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, অম্বিকাপুর ইউনিয়ন পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন