default-image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভা নির্বাচনে ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে মেয়ের জামাতা ও শ্বশুরের মধ্যে ভোটের লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত জয়ী হয়েছেন শ্বশুর মো. বাবুল মিয়া। রোববার সন্ধ্যায় ঘোষিত ফলে এই তথ্য জানা যায়।

পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে বাবুল মিয়া ৫৮৯ ভোটের ব্যবধানে কাউন্সিলর পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ভোট পেয়েছেন ১ হাজার ৪৩৬ ভোট। পানির বোতল প্রতীক নিয়ে তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জামাতা মো. হুমায়ুন কবির পেয়েছেন ৮৪৭ ভোট।

নির্বাচন কেন্দ্র ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আখাউড়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভোট পড়েছে মোট ২ হাজার ৩৫৩টি। প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ভোট অনুষ্ঠিত হয়। সকাল আটটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত চলে ভোট গ্রহণ। সেখানকার বর্তমান কাউন্সিল ছিলেন শ্বশুর মো. বাবুল মিয়া। এর আগে একই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন জামাতার বাবা মৃত মন্তাজ উদ্দিন। বাবা মারা যাওয়ায় শ্বশুরের বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন হুমায়ুন কবির।

স্থানীয় দেবগ্রামের বাসিন্দা মো. সজল আহাম্মদ খান বলেন, নির্বাচনের শুরু থেকে জামাই-শ্বশুরের প্রতিদ্বন্দ্বিতা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক আলোচনা ছিল। শেষ পর্যন্ত শ্বশুর আবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হলেন।

দেবগ্রাম সরকারি পাইলট উচ্চবিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মো. কামাল আহাম্মদ খান বলেন, সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। মো. বাবুল মিয়া পাঞ্জাবি প্রতীক নিয়ে কাউন্সিলর পদে ১ হাজার ৪৩৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন