বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বক্তারা বলেন, পুলিশ সুপারকে প্রত্যাহারের আন্দোলনকে দমিয়ে দিতে নানা রকম তৎপরতা চালাচ্ছে পুলিশ। গতকাল রোববার রাতে অনেক সাংবাদিককে ডেকে নিয়ে নানা রকম ভয়ভীতি দেখানোর চেষ্টা করা হয়। কাউকে অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করা হলে সব সাংবাদিক স্বেচ্ছায় কারাবরণ করবেন।

আন্দোলনরত সাংবাদিকদের অভিযোগ, পুলিশ নারী কল্যাণ (পুনাক) সমিতির মেলা নিয়ে গত শুক্রবার সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। ওই সভায় জামালপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হন পুলিশ সুপার। তাঁদের উঠিয়ে নিয়ে পিটিয়ে চামড়া তুলে নেওয়ার হুমকিসহ নানা আপত্তিকর মন্তব্য করেন তিনি।

তবে পুলিশ সুপার নাছির উদ্দিন আহমেদের দাবি, ‘বিষয়টিতে “আমি মাইন্ড করলাম” বলেছিলাম। আর কিছু বলিনি।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন