বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আজাহার আলী বলেন, ‘মোজাফফরের লোকজন আমাকে ও আমার তিন কর্মীকে মারপিট করেছেন। নির্বাচনের জেরে এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।’

অভিযোগের বিষয়ে মোজাফফর হোসেন বলেন, ‘আজাহার আলীর কর্মী নাজমুল হুদার কাছে আমার কর্মী মোহাম্মদ আলী টাকা পেতেন। সেই টাকা চাওয়ায় তাঁকে মারধর করা হয়েছে। আমরা গন্ডগোল থামাতে গিয়েছিলাম। আজাহার আলীর লোকজন আমাদের মারপিট করেছেন। পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট ঘটনাকে নির্বাচনের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।’

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুর রহমান বলেন, প্রথমে পাওনা টাকা নিয়ে স্বতন্ত্র দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকের মধ্যে গন্ডগোল বাধে। এরপর নির্বাচন ইস্যু নিয়ে বিএনপির দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী ও তাঁদের কর্মী-সমর্থকেরা সংঘর্ষে জড়ান। এ ঘটনায় এক পক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন