বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর স্কুলে যাওয়ার সময় ধারকি উচ্চবিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে বিদ্যালয় ফটকের সামনে থেকে অপহরণ করা হয়। এরপর মোমিন আকন্দ ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ঘটনার দুই দিন পর ৫ সেপ্টেম্বর ওই ছাত্রীর বাবা জয়পুরহাট সদর থানায় মামলা করেন। তিন মাস পর ওই ছাত্রীকে পুলিশ উদ্ধার করে।

জয়পুরহাট নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি ফিরোজা চৌধুরী বলেন, অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার আসামি মোমিন আকন্দকে অপহরণের ঘটনায় ৩০ বছরের কারাদণ্ড ও ৭ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৫ বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং ধর্ষণের ঘটনায় ৩০ বছর কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই জরিমানার টাকা পরিশোধ না করলে আসামিকে মোট ৭২ বছরের সাজাভোগ করতে হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন