বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আবুল কালামের ছেলে আবু বক্কর বলেন, ‘আমার বাবা দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস ও হার্টের সমস্যায় ভুগছিলেন। আজ হঠাৎ তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।’

২৮ নভেম্বর তৃতীয় দফায় রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পারুয়া ইউপিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই দিন ইউপির ৮ নম্বর ওয়ার্ডে সদস্য নির্বাচিত হন আবুল কালাম।

পারুয়া ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুর রহমান তালুকদার বলেন, তৃতীয় দফা নির্বাচনে আবুল কালাম বর্তমান ইউপি সদস্য ইব্রাহিম খলিলকে হারিয়ে সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। এর আগে তিনি ২০০৩ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পরিষদের সদস্য ছিলেন। এবার শপথ নেওয়ার আগেই তিনি চলে গেলেন। তাঁর মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন