default-image

ঝালকাঠির রাজাপুরে পুকুর থেকে পাঁচ বছরের এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শিশুটির দাদার অভিযোগ, তাঁর নাতিকে নানাবাড়ির লোকজন পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছে।

গতকাল শনিবার বিকেলে রাজাপুর উপজেলার বড়ইয়া ইউনিয়নের ভাতকাঠি গ্রামের একটি পুকুর থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়।

শিশুটির নাম মো. রবিউল হোসেন। বয়স ৫ বছর। তার বাবার নাম মো. জহিরুল ইসলাম। তিনি এলাকায় রিকশা চালান।

বিজ্ঞাপন

রবিউলের দাদা মোরশেদ হাওলাদার অভিযোগ করে বলেন, ‘আমার নাতিকে তার নানাবাড়ির লোকজন পরিকল্পিতভাবে পানিতে চুবিয়ে হত্যা করেছে। তদন্তে মাধ্যমে আমি এই হত্যার সুষ্ঠু বিচার চাই।’

দাদার অভিযোগের বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে রবিউলের নানাবাড়ির কারও বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার রবিউল তার মায়ের সঙ্গে একই এলাকায় (ভাতকাঠি গ্রাম) নানাবাড়িতে বেড়াতে যায়। শনিবার বিকেলে রবিউলকে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করা হয়। পরে বাড়ির পেছনের পুকুর থেকে তার নিথর দেহ উদ্ধার করেন স্বজনেরা। উদ্ধারের পর তাকে স্থানীয় নোভা ক্লিনিকে নেওয়া হয়। সেখানে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। রাত সাড়ে ৯টার দিকে ক্লিনিক থেকে শিশুটির লাশ থানায় নিয়ে আসে পুলিশ।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, আজ রোববার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য শিশুটির লাশ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এই ঘটনায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0