বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বৈঠকে উপস্থিত বিএনপি নেতারা বলেন, তিন দিন ধরে সালাউদ্দিন সরকারের টঙ্গীর বাসভবনে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা–কর্মীদের পরিচিতি সভা ও বিজয় দিবসের আলোচনা সভা চলছে। এর মাঝে শনিবার বেলা ১১টা থেকে ৫০ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির কমিটি পরিচিতি ও বিষয় দিবসের আলোচনা হওয়ার কথা। এ উপলক্ষে ৩০–৩৫ জন নেতা–কর্মী সালাউদ্দিন সরকারের বাসার হলরুমে জড়ো হন। আলোচনা শুরুর ১৫–২০ মিনিটের মধ্যে অন্তত ২৫ জন পুলিশ এসে তাঁদের ওপর চড়াও হয়। তাঁদের আলোচনা বন্ধ করতে বলা হয়। কিন্তু রাজি না হলে হলরুমের বাইরে থাকা ১০–১২ জন নেতা–কর্মীকে লাঠিপেটা শুরু করে পুলিশ। পরিস্থিতি খারাপ দেখে আলোচনা শেষ না করেই ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে বাধ্য হন তাঁরা।

টঙ্গী পূর্ব থানা বিএনপির ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক সরাফত হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, তাঁরা আলোচনা শুরু করেছেন মাত্র। এর মাঝেই হঠাৎ করে পুলিশ এসে এসব বন্ধ করতে বলে। ‘এখন আর কোনো সভা চলবে না’ জানিয়ে খারাপ ব্যবহার করতে থাকে। তাতেও পিছপা না হলে হলরুমের বাইরে থাকা নেতা–কর্মীদের লাঠিচার্জ শুরু করে। এরপর সবাই চলে যেতে বাধ্য হয়। তিনি বলেন, ‘একটি গণতান্ত্রিক দেশে ঘরোয়া বৈঠকও করতে না পারাটা খুবই দুঃখজনক।’

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন