বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

শান্ত সিকদার জানান, আজ সকালে টাঙ্গাইল শহীদ মিনারে ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান ছিল। মিছিল শেষে আজ দুপুরে সেখানে সমাবেশের প্রস্তুতি চলছিল। এ সময় সেখান থেকে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী তাঁকে ডেকে ২০–৩০ গজ দূরে সবুর খান টাওয়ারের সামনে নিয়ে যান। সেখানে যাওয়ার পর তাঁর বাসা কোথায় জিজ্ঞেস করেই তাঁর ওপর হামলা করা হয়। এ সময় কাঠের লাঠিসহ দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে তাঁকে আহত করা হয়। এতে তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম হয়েছে। এ সময় হামলাকারীরা তাঁর মুঠোফোন ছিনিয়ে নিয়েছেন। পরে সেখান থেকে দৌড়ে পালিয়ে গিয়ে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নেন।

শান্ত সিকদার বলেন, তিনি হামলাকারীদের নাম জানেন না। তবে তাঁরা শহরের আদালতপাড়ার বাসিন্দা ও ছাত্রলীগের কর্মী বলে তিনি দাবি করেন। এ ঘটনায় তিনি মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোহানুর রহমান বলেন, অনুষ্ঠানে কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি। তবে মিছিল করতে গিয়ে সামান্য ধাক্কাধাক্কি হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন