বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এদিকে আইসিইউ সচল না থাকায় গত ৩ দিনে প্রায় ৩০ মুমূর্ষু রোগীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা।
হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) শফিকুল ইসলাম বলেন, অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত আইসিইউ সচল করতে গণপূর্ত বিভাগের কর্মীরা কাজ করছেন। রোববার ঢাকা থেকে টেকনিক্যাল টিম এসে এটি সচল করতে কাজ করবে। অগ্নিকাণ্ডে চারটি হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা নষ্ট হয়ে গেছে। তবে বৈদ্যুতিক সঞ্চালন ও কেন্দ্রীয় অক্সিজেন সরবরাহব্যবস্থার কোনো সমস্যা হয়নি।

শফিকুল ইসলাম আরও বলেন, আইসিইউ চালু না থাকায় মুমূর্ষু রোগীদের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। প্রতিদিন ১০ থেকে ১২ জনকে এ পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। তবে অনেক মুমূর্ষু রোগী আর্থিক অসচ্ছলতার কারণে ঢাকায় না গিয়ে টাঙ্গাইলেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

জেলা সিভিল সার্জন আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান বলেন, রোববার ঢাকা থেকে টেকনিক্যাল টিম এসে কাজ করার পরই আইসিইউ চালু করা যাবে।
এদিকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় জেলা প্রশাসনের গঠিত তদন্ত কমিটি কাজ শুরু করেছে। কমিটির প্রধান টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সোহানা নাসরিন বলেন, তদন্ত শেষে আগামী মঙ্গলবার প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে।

গত বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া তিনটায় হাসপাতালের আইসিইউ ওয়ার্ডে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। হাই ফ্লো নাজাল ক্যানুলা থেকে এ অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। পরে রোগীদের সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন