default-image

কক্সবাজারের টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে একজন ইয়াবা কারবারি নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে টেকনাফ উপজেলার সাবরাং ইউনিয়নের শাহপরীর দ্বীপ পূর্ব ও দক্ষিণ জালিয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ ২ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান।

বিজিবির দাবি, নিহত ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি। তিনি ইয়াবা কারবারি ছিলেন। ঘটনাস্থল থেকে ৫২ হাজার ইয়াবা, একটি দেশীয় অস্ত্র ও গুলির একটি খালি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় নিহত ব্যক্তি মিয়ানমারের নাগরিক হতে পারেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান বলেন, গতকাল রাতে শাহপরীর দ্বীপ সীমান্তচৌকির দিকে নৌকায় করে মিয়ানমার থেকে কয়েকজনকে আসতে দেখেন বিজিবির সদস্যরা। তাঁদের চ্যালেঞ্জ করলে তাঁরা বিজিবির সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এতে বিজিবির একজন সদস্য আহত হন। আত্মরক্ষার্থে বিজিবির সদস্যরা পাল্টা গুলি চালান। একপর্যায়ে একজন ইয়াবা কারবারি গুলিবিদ্ধ হয়ে নৌকা থেকে পড়ে যান। অন্যরা নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাঁতরে শূন্যরেখা দিয়ে মিয়ানমারের ভেতরে পালিয়ে যান। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে জানা যায়, নাফ নদীর পাড়ে একজনের লাশ পড়ে আছে। পরে পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

টেকনাফ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল আলিম প্রথম আলোকে বলেন, ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অজ্ঞাতপরিচয়ের এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর বয়স আনুমানিক ৫০ বছর। লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।

২০১৮ সালের ৪ মে থেকে সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকে আজ পর্যন্ত চারজন নারীসহ শুধু কক্সবাজার জেলায় ২৭৬ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে শুধু টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মারা গেছেন ১৬৪ জন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন