default-image

চৈত্রের সকালে গোমতী নদীতে বড়শি দিয়ে মাছ ধরতে অটোরিকশায় যাচ্ছিলেন কুমিল্লার আদর্শ সদর উপজেলার পাঁচথুবী ইউনিয়নের ডুমুরিয়া চানপুর এলাকার ছয়জন। হঠাৎ বালুবাহী একটি ট্রাক উপজেলার পালপাড়া এলাকায় সড়কের মধ্যে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অপর তিনজন। রোববার সকাল নয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত তিনজন হলেন ডুমুরিয়া চানপুর গ্রামের আবদুল কাদের (৭০), আবদুল মতিন (৭২) ও হেলাল সওদাগর (৬০)। নিহত কাদেরের তিন ছেলে ও দুই মেয়ে, মতিনের তিন ছেলে ও চার মেয়ে এবং হেলালের দুই মেয়ে ও এক ছেলে। আহত ব্যক্তিরা হলেন একই গ্রামের তোফায়েল আহমেদ (৫৮), ফরিদ মিয়া (৬০) ও আবদুল মান্নান (৬০)। এর মধ্যে মান্নান প্রাথমিক চিকিত্সা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন। অপর দুজন কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বিজ্ঞাপন

আবদুল কাদেরের স্ত্রী জোছনা বেগম বলেন, সকালের নাশতা করে কাদের বাড়ি থেকে বের হন। এর কিছুক্ষণ পর দুর্ঘটনায় তাঁর স্বামীর মৃত্যুর খবর পান তিনি। তিনি আরও বলেন, ‘গোমতী নদীর বালুবাহী ট্রাক কেড়ে নিল আমার স্বামীসহ আরও দুজনকে। আমি এর বিচার চাই।’

আহত আবদুল মান্নান বলেন, হঠাৎ পেছন দিক থেকে এসে তাঁদের বহনকারী অটোরিকশাকে চাপা দেন ট্রাকচালক। অটোরিকশার চালক ও তিনি সামনে থাকায় আঘাত কম পেয়েছেন।

কুমিল্লার কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল হক বলেন, দুর্ঘটনায় অটোরিকশাটি দুমড়েমুচড়ে গেছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করে দেখছে। লাশ তিনটি উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন