default-image

পাবনার ঈশ্বরদীতে যাত্রীবাহী বাসের দরজা দিয়ে মাথা বের করে রাস্তা দেখতে গিয়ে ট্রাকের ধাক্কায় মাথা থেঁতলে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। তিনি ওই বাসে চালকের সহকারী ছিলেন। আজ রোববার দুপুরে উপজেলার মুলাডুলি রেলগেট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম নজরুল ইসলাম (৪৫)। তাঁর বাড়ি যশোর সদরের নীলগঞ্জ তাঁতিপাড়া মহল্লায়। তিনি যশোর থেকে বগুড়াগামী হ্যাপি ট্রাভেলস নামের একটি যাত্রীবাহী বাসে চালকের সহকারী ছিলেন।

স্থানীয় কয়েকজন লোকজন ও প্রত্যক্ষদর্শীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বাসটি প্রতিদিন যশোর-বগুড়া পথে চলাচল করে। বেলা দুইটার দিকে বগুড়া যাওয়ার পথে বাসটি মুলাডুলি রেলগেট অতিক্রম করছিল। হঠাৎ করেই চালকের সহকারী নজরুল ইসলাম বাসের পেছনের দরজা দিয়ে রাস্তা দেখতে মাথা বের করেন। এ সময় পেছন থেকে রেলগেট অতিক্রম করতে যাওয়া একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লেকে তাঁর মাথা থেঁতলে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে চিকিৎসকেরা মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

ঈশ্বরদীর পাকশী হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান বলেন, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে বাসটি ও বাসচালককে আটক করা হয়। তবে ঘাতক ট্রাকটি পালিয়ে গেছে। নজরুলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। একই সঙ্গে নিহত নজরুলের পরিবারে খবর পাঠানো হয়েছে। তাঁরা এসে কোনো অভিযোগ করলে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন