default-image

সিলেটের ওসমানীনগরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের গোয়ালাবাজারে গতকাল বুধবার সকাল থেকেই পাথরবোঝাই একটি ট্রাক দাঁড় করিয়ে রাখা ছিল। দুপুর পর্যন্ত ট্রাকটির চালক কিংবা সংশ্লিষ্ট কারও দেখা মিলছিল না। পরে গোয়ালাবাজার এলাকার এক ব্যবসায়ী ট্রাকের জানালা দিয়ে উঁকি মেরে দেখতে পান, চালকের আসনে একজনের রক্তাক্ত লাশ।

খবর পেয়ে সিলেটের ওসমানীনগর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশটি উদ্ধার করে।

পুলিশ নিহত ব্যক্তির পরিচয় শনাক্ত করেছে। তাঁর নাম মুজিবুর রহমান (৪০)। তিনি কুমিল্লার মুরাদনগরের আলীরচর গ্রামের বাসিন্দা।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল সকাল থেকে ওসমানীনগরের দক্ষিণ গোয়ালাবাজারে পাথরবোঝাই ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় ব্যবসায়ী ছিদ্দিকুর রহমান। ট্রাকটি তাঁর ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের সামনে থাকায় তিনি দুপুরের দিকে ট্রাকটি সরানোর জন্য চালককে ডাকাডাকি করেন। কিন্তু সাড়া না পেয়ে ট্রাকের জানালা দিয়ে ভেতরে উঁকি মেরে একজনের লাশ দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে তিনি পুলিশকে বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। পুলিশ বলছে, নিহত ব্যক্তির শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে।

ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাকসুদুল আমীন আজ বৃহস্পতিবার বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা ট্রাকচালককে হত্যা করে ভেতরে ফেলে রেখে গেছে। নিহত ট্রাকচালক সিলেটের ভোলাগঞ্জ থেকে পাথর নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছিলেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন