ট্রেনচালক আক্তারুজ্জামান বলেন, আনসার সদস্যরা যাত্রীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে অন্যায়ভাবে ট্রেনের ইঞ্জিনের মধ্যে যাত্রী ওঠাচ্ছিলেন। ইঞ্জিনে যাত্রী না ওঠানোর জন্য আনসার সদস্যদের অনুরোধ করলে তাঁরা খারাপ আচরণ করেন। একপর্যায়ে তাঁকে গালাগাল ও মারধর করা হয়। এ ঘটনার বিচারের জন্য দেড় ঘণ্টা ট্রেন চালানো থেকে বিরত ছিলেন তিনি। পরে রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে ঘটনার বিচারের আশ্বাস দিলে তিনি বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে ট্রেন চালিয়ে গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা দেন।

গাজীপুর সদর সার্কেল আনসার অ্যাডজুট্যান্ট গণেশ যাদব বলেন, স্টেশনে দায়িত্বে থানা আনসারের ওই তিন সদস্যকে প্রত্যাহার করে জেলা কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়েছে। তাঁদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জয়দেবপুর জংশনে দায়িত্বরত রেলওয়ে পুলিশের এসআই শহিদুল ইসলাম জানান, আনসার সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পর বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে ট্রেনটি স্টেশন ছেড়ে যায়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন