default-image

বগুড়ায় রেললাইনের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা এক ব্যক্তিকে চলন্ত ট্রেনের নিচে ধাক্কা দিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন দুজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। আজ সোমবার দুপুরে বগুড়া শহরতলির তিনমাথা হাজির মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম আনিসুর রহমান (৫২)। তিনি বগুড়া শহরের কাটনারপাড়া এলাকার বাসিন্দা এবং তিনমাথা হাজির মিল মোড় এলাকায় রডের আসবাব তৈরির ছোট কারখানায় মিস্ত্রি ছিলেন। আটক ব্যক্তিরা হলেন কাহালু উপজেলার পিলকুঞ্জ গ্রামের গোলাম রব্বানী (৪৫) ও একই গ্রামের লুৎফর রহমান (৪২)।

বিজ্ঞাপন

ঘটনার পরপরই বগুড়া রেলস্টেশন ফাঁড়ি পুলিশ ও সদর থানার পুলিশ আনিসুর রহমানের লাশ উদ্ধার করে। পরে ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর লাশ শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়। আটক দুই ব্যক্তিকে হেফাজতে নেয় সদর থানার পুলিশ।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, আনিস তাঁর কারখানার অদূরে রেললাইনের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। বেলা আড়াইটার দিকে সান্তাহার থেকে ছেড়ে আসা দিনাজপুরগামী আন্তনগর দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেনটি অতিক্রম করার সময় আটক দুই ব্যক্তি আনিসুর রহমানকে চলন্ত ট্রেনের সামনে ধাক্কা দেন। এতে ট্রেনে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলেই আনিস মারা যান। এ সময় ওই দুই ব্যক্তি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে তাঁদের আটক করেন এবং পুলিশে সোপর্দ করেন।

বিজ্ঞাপন

রেলওয়ে পুলিশ (জিআরপি) বগুড়া স্টেশন ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকতারুন্নাহার রাত নয়টায় জানান, স্বজনেরা অভিযোগ করেছেন, চলন্ত ট্রেনের নিচে ধাক্কা দিয়ে ফেলে আনিসকে হত্যা করা হয়। এ ব্যাপারে জিআরপি বোনারপাড়া থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। ওই মামলায় আটক দুজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে।

মন্তব্য পড়ুন 0