ঢাকা-সান্তাহার-লালমনিরহাট যাত্রাপথে চলাচলকারী আন্তনগর লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনেও শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে। প্রতিদিনের পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী রংপুর থেকে ছেড়ে আসা এই ট্রেন বগুড়া স্টেশনে পৌঁছার কথা বেলা ১টা ৪ মিনিটে। প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টা বিলম্বের পর শনিবার এই ট্রেন বগুড়া রেলস্টেশনে ভিড়েছে বেলা ২টা ৪৮ মিনিটে। এর আগে আন্তনগর লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেন কমলাপুর থেকে ছেড়ে শনিবার ভোর ৪টার দিকে বগুড়া রেলস্টেশনে পৌঁছার কথা। প্রায় দুই ঘণ্টা বিলম্বের পর এই ট্রেন পৌঁছায় সকালে।

ঢাকা-সান্তাহার-লালমনিরহাট যাত্রাপথে চলাচলকারী সব ট্রেনেই দিনে-রাতে তিন-চার ঘণ্টার শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে। এ ছাড়া সান্তাহার-বোনারপাড়া-বুড়িমারী রুটে চলাচলকারী ট্রেনেরও যাত্রাসূচি ভেঙে পড়ায় দেড়-দুই ঘণ্টার বেশি বিলম্বিত হচ্ছে।

সান্তাহার থেকে ছেড়ে আসা বুড়িমারীগামী আন্তনগর করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেন বগুড়া রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছার কথা ৯টা ৫৫ মিনিটে। এই ট্রেনেও প্রায় দুই ঘণ্টার শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে। রাত ৯টা ২১ মিনিটে বুড়িমারী থেকে ছেড়ে আসা করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেন শনিবার রাত ১২টায় পৌঁছাতে পারে।

লালমনিরহাট থেকে ছেড়ে আসা বগুড়া কমিউটার ট্রেন বগুড়া রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌঁছার কথা সকাল ১০টা ২৭ মিনিটে। দুই ঘণ্টা বিলম্বের পর শনিবার এই ট্রেন পৌঁছেছে দুপুর সাড়ে ১২টায়। সান্তাহার থেকে দিনাজপুরগামী দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেন বগুড়া রেলওয়ে স্টেশনে পৌঁছার কথা বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে। এই ট্রেনও এক ঘণ্টা বিলম্বের পর বগুড়া স্টেশনে পৌঁছায় দুপুর ১২টা ৩৭ মিনিটে।

শনিবার রাতের আন্তনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কেটেছিলেন রাজধানীর একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত প্রকৌশলী নাজমুল নাহিদ। পরে ট্রেনের আশা বাদ দিয়ে রাত নয়টার দিকে সাতমাথায় টিকিট কাউন্টার থেকে বাসের টিকিটের জন্য ছোটাছুটি করছিলেন। প্রথম আলোকে তিনি বলেন, ‘রাত সোয়া ১১টার এই ট্রেনে চড়ে সকালে কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছে রোববারের অফিস ধরার কথা। এখন রাত দুইটায় রওনা দিয়ে অফিস ধরা সম্ভব নয়। সেই জন্য বাসের টিকিটির চেষ্টা করছি।’

গতকাল রাতে বগুড়া রেলস্টেশন থেকে আন্তনগর রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনে ঢাকায় রওনা দেওয়া আতিক মোহাম্মদ শামিম বলেন, রাত সোয়া ১১টার ট্রেন স্টেশনে পৌঁছায় রাত সোয়া ১টায়। সকালে ট্রেন থেকে ঢাকায় নেমেই অফিসে ছুটতে হয়েছে।

ঢাকার কমলাপুর থেকে ছেড়ে আসা রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনে আগাম টিকিট কেটে রেলস্টেশনে ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করছিলেন ব্যাংক কর্মকর্তা ইমরুল কায়েস। তিনি বলেন, তিন ঘণ্টা অপেক্ষার পর বেলা ৩টা ৫৪ মিনিটের ট্রেন স্টেশনে ভিড়েছে সন্ধ্যা ৬টা ৫৮ মিনিটে।

বগুড়ার স্টেশনমাস্টার সাজেদুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, আন্তনগর রংপুর এক্সপ্রেস ও লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনে গড়ে তিন ঘণ্টা শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে। এ ছাড়া করতোয়া, দোলনচাঁপা, বগুড়া কমিউটার ট্রেনেও শিডিউল লন্ডভন্ড হয়।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন