default-image

জয়দেবপুর-যমুনা সেতু রেললাইনের গাজীপুর সিটি করপোরেশনের আহাকি এলাকায় আজ রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ট্রেনে কাটা পড়ে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। এই দুই শিশুর পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে তাদের বয়স ১৩-১৪ বছর হবে।

এদিকে কালিয়াকৈর উপজেলার রতনপুর রেলক্রসিং এলাকায় রোববার সকালে ট্রেনে কাটা পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এই ব্যক্তিরও পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাঁর বয়স আনুমানিক ৪০ বছর।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা ও রেলওয়ে সূত্রে জানা গেছে, আহাকি এলাকায় জয়দেবপুর-যমুনা সেতু রেললাইনের পাশে ওই দুই শিশু লাটিম নিয়ে খেলা করছিল। এ সময়ে ঢাকা থেকে খুলনাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে ওই দুই শিশু কাটা পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই তাদের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে গাজীপুর রেলওয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে তাদের লাশ উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন

গাজীপুর রেলওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল মান্নান জানান, ওই শিশুদের পাশে লাটিম পড়ে ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, ওই দুই শিশু রেললাইনের পাশে লাটিম দিয়ে খেলতে গিয়ে ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে। তাদের দুজনের পরনেই জিনসের প্যান্ট ও একজনের শরীরে কমলা রঙের গেঞ্জি রয়েছে।

এসআই আবদুল মান্নান আরও জানান, কালিয়াকৈরে ট্রেনে কাটা পড়া ওই ব্যক্তি রোববার সকাল নয়টার দিকে রতনপুর রেলক্রসিং বাজার থেকে কেনাকাটা করে জয়দেবপুর যমুনা সেতু রেললাইন দিয়ে হেঁটে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় যমুনা সেতুর দিক থেকে জয়দেবপুরগামী একটি ট্রেনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তিনি ছিটকে পড়েন। পরে আশপাশের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়। তাৎক্ষণিকভাবে তাঁর পরিচয় পাওয়া যায়নি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন