বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পুলিশের অভিযানের কারণে সরদার সুজন তরফদার তাঁর কার্যক্রম গুটিয়ে আত্মগোপনে চলে যান। বেশ কিছুদিন আগে তিনি এলাকায় ফেরেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রজাপতির চর বাজারে তিনি একটি চায়ের দোকানে বসেছিলেন। সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে হঠাৎ কয়েকজন তাঁকে দোকান থেকে বের করে প্রকাশ্যে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রজাপতি চর এলাকা থেকে ওই দুজনকে আটক করে।

সহকারী পুলিশ সুপার (ইসলামপুর সার্কেল) সুমন মিয়া আজ বুধবার দুপুরে প্রথম আলোকে বলেন, নিহত ব্যক্তি কুখ্যাত ডাকাত সরদার ছিলেন। যমুনা নদী ও বিভিন্ন চরে তিনি ও তাঁর বাহিনী ডাকাতি করত। তাঁর বিরুদ্ধে ৬টি হত্যা, ১টি অস্ত্র, অপহরণসহ ১৩টি মামলা রয়েছে বিভিন্ন থানায়। তাঁর সঙ্গে অন্য একটি ডাকাত দলের শত্রুতা ছিল। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পূর্ব শত্রুতার কারণেই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন