বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বন সংরক্ষক এম এ হাসান বলেন, বুধবার রাজকুমারী ম্যারি এলিজাবেথ ডোনাল্ডসন সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর উপজেলায় আসবেন। সফরসূচির অংশ হিসেবে তাঁর সুন্দরবনে ভ্রমণ ও বন বিভাগের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময়ের কথা রয়েছে। রাজকুমারীর সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে মঙ্গল ও বুধবার সাতক্ষীরা রেঞ্জের সুন্দরবনে পর্যটকদের প্রবেশে নিশেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

এ দুই দিন বুড়িগোয়ালিনী স্টেশন ও মুন্সিগঞ্জ ফাঁড়ি দিয়ে কাউকে সুন্দরবনে, বিশেষ করে কলাগাছি ও দোবেকি পর্যটককেন্দ্রে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি।

এম এ হাসান বলেন, এই সময়ে নতুন করে কোনো জেলে, বাওয়ালি ও মৌয়াল বুড়িগোয়ালিনী স্টেশন থেকে সুন্দরবনে ঢুকতে পারবেন না। আগে থেকে যেসব জেলে, বাওয়ালি ও মৌয়াল সুন্দরবনে অবস্থান করছেন—এ দুই দিন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তাঁদের তদারকিতে রাখবেন। তবে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে সুন্দরনে ভ্রমণ বা মধু ও অন্যান্য সম্পদ আহরণ আগের মতো স্বাভাবিক নিয়মেই চলবে।

সাতক্ষীরা তথ্য কার্যালয় থেকে সরবরাহ করা সফরসূচিতে জানা গেছে, বুধবার সকাল সাড়ে নয়টায় শ্যামনগর উপজেলার মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের একটি বেসরকারি সংস্থার টাইগার পয়েন্টে হেলিকপ্টারযোগে অবতরণ করবেন রাজকুমারী ম্যারি এলিজাবেথ ডোনাল্ডসন। সেখান থেকে গাড়িতে করে মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের কুলতলী এলাকায় জলবায়ু সহনশীল কৃষি দেখবেন। একই সঙ্গে সুন্দরবন উপকূলের ‘আকাশ লীনা ইকো ট্যুরিজম’ ইকোপার্ক পরিদর্শন করবেন রাজকুমারী।

এ ছাড়া জলবায়ু ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর বসবাসের এলাকায় সাইক্লোন শেল্টার ও বেড়িবাঁধ পরিদর্শন এবং বাঁধের পাশে বসবাসকারী ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন রাজকুমারী ম্যারি এলিজাবেথ ডোনাল্ডসন। দুপুরে বুড়িগোয়ালিনী ইউনয়িনের বরসা রিসোর্টে অবস্থান করবেন। এ ছাড়া সুন্দরবনে ভ্রমণ করবেন তিনি। বুধবার বিকেল চারটায় হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় ফিরবেন ডেনমার্কের রাজকুমারী।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন