পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে ঢাকার গাবতলী থেকে সেলফি পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস মানিকগঞ্জে পাটুরিয়া ঘাটের উদ্দেশে রওনা দেয়। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের তরা সেতুর পূর্ব প্রান্তে বিপরীত দিক থেকে আসা পণ্যবাহী একটি ট্রাকের সঙ্গে ওই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের যাত্রী আশিকুর নিহত হন। এ ঘটনায় বাসের যাত্রীসহ ১০ জন আহত হয়েছেন।

default-image

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, গোলড়া হাইওয়ে থানা-পুলিশ, মানিকগঞ্জ সদর থানা-পুলিশ এবং জেলা ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা উদ্ধার তৎপরতা চালায়। এ সময় হতাহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে জেলা সদরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠায়।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বেলা ১১টার দিকে দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও ট্রাকটি মহাসড়কের ওপর রয়েছে। যান দুটির সামনের অংশ দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। এতে ঘটনাস্থলের উভয়পাশে অন্তত ছয় কিলোমিটার এলাকায় দীর্ঘ সারিতে আটকা পড়ে যানবাহন। পরে দুপুর ১২টার দিকে হাইওয়ে পুলিশ দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও ট্রাকটি সরিয়ে নিলে সড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসে। তবে বেলা ১টার দিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই সড়কে ধীরগতিতে যানবাহন চলছে।

আশিকুরের সঙ্গে তাঁর মা-বাবাও ছিলেন। তবে তাঁরা অক্ষত রয়েছেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে দুর্ঘটনাস্থলের পাশে একটি গাছের নিচে নিহত আশিকুরের মা–বাবাকে আহাজারি করতে দেখা যায়। পরে কথা হলে তাঁরা বলেন, কিডনিতে সমস্যা হওয়ায় গত শনিবার তাঁরা ঢাকায় একটি হাসপাতালে আশিকুরকে নিয়ে যান। সেখানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শে বিভিন্ন পরীক্ষা শেষে তাঁরা আজ বাড়ি ফিরছিলেন। পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

গোলড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদ খান বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত বাস ও ট্রাক জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। ওই দুর্ঘটনায় বাস ও ট্রাকের চালক আহত হয়েছেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন