বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় রোববার তরুণী বাদী হয়ে আবু সায়েদকে আসামি করে সোনাগাজী মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ মামলা করেন। সেই মামলায় সায়েদকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

ওই তরুণী বলেন, আবু সায়েদের কারণে তাঁর সংসার নষ্ট হয়ে গেছে। বিয়ের আশ্বাস দিয়ে একাধিকবার তাঁকে ধর্ষণ করেছেন। তিনি আবু সায়েদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সোনাগাজী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. বেলায়েত হোসেন বলেন, রোববার দুপুরে ফেনীর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ওই নারীর শারীরিক পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুর রহিম সরকার বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে আবু সায়েদ ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। তাঁকে আদালতের মাধ্যমে ফেনী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন