বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগে ২১ মার্চ রাতে নিউমার্কেটের সামনের ফুটপাতে নিজের দোকানেই ছুরিকাঘাতে আহত হন রিয়াজুল (২৩)। হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। তিনি ফুটপাতে জুতার দোকান চালাতেন। ছুরিকাঘাতের ঘটনায় আহত হন রিয়াজুলের ভাই রিংকুও। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। সেদিন রাতেই এ ঘটনায় নিহত রিয়াজুলের বাবা মধু মিয়া বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার এজাহারভুক্ত আসামিরা হলেন নগরের ষষ্ঠীতলা এলাকার সাঈদ শেখের ছেলে রানা শেখ (৩০) ও রনি শেখ (২৬), রতনের ছেলে নাঈম (২৬), গৌরহাঙ্গা এলাকার আনুর ছেলে রিমন (২৪) ও দড়িখড়বনা এলাকার হাসুর ছেলে নাঈম (৩৫)। এ ছাড়া আরও কয়েকজনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে ষষ্ঠীতলা এলাকার নাঈমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নিহত রিয়াজুলের পরিবারের দাবি, তাঁতি লীগের রানা ও রনি কয়েক দিন ধরে ফুটপাত থেকে তাঁদের উচ্ছেদের চেষ্টা করছিলেন। এ নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে ২১ মার্চ রাত পৌনে ৮টার দিকে দোকানে গিয়েই রিয়াজুল ও রিংকুর ওপর হামলা করেন তাঁরা।

default-image

বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজহারুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ফুটপাতকে কেন্দ্র করেই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ সেটি উচ্ছেদ করেছে। তাঁতি লীগের আহ্বায়ককে আটকের বিষয়ে তিনি বলেন, তাদের মধ্যে একাধিক গ্রুপ আছে। একটি গ্রুপ নিজেরাই তাদের কার্যালয় ভাঙার চেষ্টা করছিল। কিন্তু সেটা তাদের কাজ নয়। এ নিয়ে সেখানে হট্টগোল হলে পুলিশ তাদের নিবৃত্ত করে। তাদের থানায় এনে পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে মাজহারুল ইসলাম বলেন, ফুটপাতে তরুণ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিরা পলাতক। তাঁদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। শিগগিরই তাঁদের গ্রেপ্তার করা হবে।

এদিকে ফুটপাতের দোকান উচ্ছেদ করার পর সেখানকার ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা হয়। তাঁরা প্রথম আলোকে বলেন, সামনে রমজান মাস। একটি হত্যাকাণ্ডের পর প্রায় ১০০ পরিবার পথে বসে গেল। নিহত রিয়াজুলের বোন বৃষ্টি আক্তার বলেন, হত্যাকাণ্ডের ঘটনা এক সপ্তাহ হয়ে গেছে। কিন্তু তাঁতি লীগের ওই দুই ভাইকে পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারল না। উল্টো তাঁদের দোকানগুলোই ভেঙে দিল।

নিউমার্কেটের সামনের ফুটপাতে মূলত জুতা, কাপড়, চায়ের দোকান চলে। ফুটপাতে জুতার ব্যবসা করেন আলামিন ও আকাশ। তাঁরা প্রথম আলোকে বলেন, ফুটপাত ভেঙে ফেলার বিষয়টি আগে থেকে তাঁদের বলা হয়নি। রমজান মাসকে সামনে রেখে তাঁরা দোকানে অনেক বিনিয়োগ করেছেন। এখন তাঁরা সেসব মালপত্র কীভাবে বিক্রি করবেন? পরিবার চালাবেন কী করে? তাঁরা সামনের রমজান মাসটা সময় দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইমরানুল হক প্রথম আলোকে বলেন, তাঁরা নিয়মিতই ফুটপাত দখলমুক্ত করার কাজ করেন। যেহেতু সেখানে একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে, তাই সেটা ভেঙে দেওয়া হয়েছে। নিউমার্কেটের উত্তর পাশের ফুটপাত ভাঙা হয়নি। কারণ, তাঁর পাশে দারুচিনি নামে একটি ভবনের নির্মাণ হচ্ছে। ওই ভবনের কাজ শেষ হলেই উত্তর পাশের ব্যবসায়ীদের ওই ভবনের একটি অংশে পুনর্বাসন করা হবে। এ নিয়ে তাঁদের সঙ্গে সিটি করপোরেশনের কথা হয়েছে বলে জানান তিনি।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন