default-image

সংসারে শান্তি ফেরানোর জন্য তাবিজ দেওয়ার কথা বলে গৃহবধূকে (২০) ধর্ষণের অভিযোগে এক কবিরাজকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব-১। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার একটি গ্রাম থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তার ওই কথিত কবিরাজের নাম শফিকুল ইসলাম (৩২)। তিনি ও নির্যাতনের শিকার নারী একই গ্রামে থাকেন। শফিকুল ইসলাম কবিরাজি পেশার সঙ্গে জড়িত। নিজ গ্রামে বাড়ির পাশেই একটি দোকান আছে তাঁর।

বৃহস্পতিবার বিকেলে র‍্যাব-১ গাজীপুর ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার আবদুল্লাহ-আল-মামুন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

র‍্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ওই নারী চার মাস ধরে কবিরাজের গ্রামের এলাকায় ভাড়া থাকেন। সেখানে দোকানে যাওয়া-আসার সুবাদে ওই নারীর সঙ্গে কবিরাজের পরিচয় হয়। ওই নারী তাঁর সাংসারিক দাম্পত্য সমস্যায় ভুগছিলেন। এ সমস্যার সমাধান করে দেওয়ার জন্য তাবিজ করতে হবে বলে জানান শফিকুল।

র‍্যাব জানায়, তাবিজ নেওয়ার জন্য ৭ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা সাতটায় ওই নারীকে কবিরাজ তাঁর দোকানে আসতে বলেন। তাঁর কথামতো দোকানে এলে ফুসলিয়ে নারীকে দোকানের পেছনে নিজের বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করেন শফিকুল। এ বিষয়ে ১০ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগী নারী র‍্যাব-১ গাজীপুর ক্যাম্পে এসে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে কোম্পানি কমান্ডার আবদুল্লাহ–আল–মামুনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়। একই দিন শ্রীপুর থানায় এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন