default-image

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় মুরগির খামারের দরজার তালা চুরির অভিযোগে মিনহাজ (৪) নামে এক শিশুকে বৈদ্যুতিক শক দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় করা মামলায় আজ শুক্রবার বিকেলে তোফায়েল আহমেদ নামে একজনে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কেরোয়া ইউনিয়নের পূর্ব কেরোয়া গ্রামের মীরগঞ্জ বাজারের পাশে ইসমাইল ব্যাপারীর বাড়িতে শিশুটিকে বৈদ্যুতিক শক দেওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার দুপুরে মিনহাজের বাবা দিনমজুর জামাল হোসেন থানায় মামলা করেন। এতে খামারমালিক তোফায়েল আহমেদকে আসামি করা হয়।
থানা–হাজতে অবস্থানকালে তোফায়েল আহমেদ দাবি করেন, মিনহাজ খামারের দরজার তালা চুরি করেছে। এ কারণে তাকে শক দেওয়ার ভয় দেখানো হয়েছে। তাকে মারধরও করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মিনহাজ মীরগঞ্জ বাজার হাফেজিয়া মাদ্রাসার ছাত্র। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার সকালে মিনহাজ মাদ্রাসায় যায়। দুপুরে মাদ্রাসা ছুটি হলেও সে বাড়ি না ফেরায় তার মা লাভলী বেগম বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করেন। একপর্যায়ে মুরগির খামার থেকে ছেলের চিৎকার শুনতে পান তিনি। সেখান গিয়ে তিনি ছেলেকে আহত অবস্থায় দেখতে পান। সে সময় লাভলীর চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুটে আসেন। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে খামারমালিক তোফায়েল আহমেদ পালিয়ে যান। পরে আহত অবস্থায় মিনহাজকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
মিনহাজের বাবা জামাল হোসেন বলেন, ‘তোফায়েল আমার ছেলের মাথা ও ঘাড়ে বৈদ্যুতিক শক দিয়ে জখম করেছে। আমার ছেলে নাকি তার খামারের দরজার তালা চুরি করেছে।’
রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল জলিল বলেন, ঘটনাটি মর্মান্তিক। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন