default-image

কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলায় মোস্তফা কামাল (৩০) নামে এক ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাচালকের হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের উত্তর করাতি গ্রামে রাস্তার পাশের গর্ত থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করা হয়।

মোস্তফা উপজেলার সাচাইল ইউনিয়নের দড়ি জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের মো. আবদুল জলিলের ছেলে। তাঁর এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মোস্তফা কামাল অটোরিকশা চালাতেন। গতকাল রাতে কে বা কারা মোস্তফা কামালকে শ্বাসরোধে হত্যা করে উপজেলার দিগদাইড় ইউনিয়নের উত্তর করাতি গ্রামে রাস্তার পাশের গর্তে লাশ রেখে পালিয়ে যান। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মোস্তফার অটোরিকশা, মুঠোফোন ও অটোরিকশা থেকে প্রায় ২০০ গজ দূরে হাত পা বাঁধা অবস্থায় গর্ত থেকে মোস্তফা কামালের লাশ উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন

তাড়াইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুজিবুর রহমান জানান, মোস্তফা কামালের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, মোস্তফা কামালকে শ্বাস রোধে হত্যা করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মোস্তফার বাবা আবদুল জলিল বাদী হয়ে তাড়াইল থানায় অজ্ঞাত লোকজনের নামে মামলা করেছেন। এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে দ্রুত হত্যাকারীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন