default-image

টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় তিন বন্ধু মিলে এক গৃহবধূকে (২০) ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ বুধবার ভোরে ওই গৃহবধূকে অসুস্থ অবস্থায় টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনায় আজ বিকেলে ওই গৃহবধূর বাবা বাদী হয়ে তিন তরুণকে আসামি করে সখীপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। পুলিশ মামলার প্রধান আসামি সিয়াম হাসানকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ জানায়, অন্য দুই তরুণকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই গৃহবধূ তাঁর স্বামীকে নিয়ে ঘাটাইল উপজেলার একটি গ্রামে বাস করেন। মঙ্গলবার বিকেলে ওই গৃহবধূর বন্ধু জয় মিয়া তাঁকে ফুসলিয়ে মোটরসাইকেলে তুলে সখীপুরে নিয়ে আসেন। রাতে পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বাড়িতে তিন বন্ধু পর্যায়ক্রমে তাঁকে ধর্ষণ করেন। ভোরে ওই গৃহবধূ অসুস্থ হয়ে পড়লে তিন বন্ধু মিলে তাঁকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে পালিয়ে যান। পরে তাঁদের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সখীপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এ এইচ এম লুৎফুল কবির প্রথম আলোকে বলেন, ধর্ষণ মামলার এক আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি দুই আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। বর্তমানে ওই গৃহবধূ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন