বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আজ সকালে আল মামুন পাথর পরিবহনের জন্য পঞ্চগড় থেকে খালি ট্রাক নিয়ে বাংলাবান্ধার উদ্দেশে রওনা হন। এ সময় ট্রাকের চাকায় হাওয়া কম থাকায় ভজনপুর বাজারের রবিউল ইসলামের মোটর মেকানিক ওয়ার্কশপে গাড়ি থামান। সেখানে ট্রাকের চাকায় হাওয়া দেওয়া শেষ হলে দোকানমালিককে টাকা দিচ্ছিলেন মামুন। পাশেই দোকানের কর্মচারী মেকানিক নাজমুল ইসলাম কাজ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ করেই বিকট শব্দে কম্প্রেসর যন্ত্রের সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়। এতে আল মামুন, ওয়ার্কশপের মালিক রবিউল ইসলাম, কর্মচারী নাজমুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। স্থানীয় লোকজন আহত তিনজনকেই গুরুতর আহত অবস্থায় পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে চিকিৎসক আল মামুনকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত নাজমুল ইসলাম ও রবিউল ইসলামের অবস্থার অবনতি হলে তাঁদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ভজনপুর বাজার এলাকার বাসিন্দা ফারুক হোসেন বলেন, ‘দোকানটি থেকে আমাদের বাড়ির দূরত্ব প্রায় ২০০ গজ। বিস্ফোরণের শব্দ আমরা বাড়ি থেকে শুনেছি। সিলিন্ডারের টুকরো অংশগুলো আমাদের বাড়ির পাশে এসে পড়েছিল।’

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট (সার্জারি) আমির হোসেন বলেন, আল মামুনকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়।। তাঁর শরীরের বিভিন্ন স্থান ক্ষতবিক্ষত ছিল। এ ছাড়া আহত নাজমুলের মাথায় আঘাত লেগেছে। রবিউলের বাঁ পায়ের গোড়ালির হাড় ভেঙে ও ডান পায়ের মাংস ছিঁড়ে গেছে।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ছায়েম মিয়া বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির কোনো অবহেলা বা যন্ত্রের ত্রুটি ছিল কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন