default-image

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় নদীতে পাথর উত্তোলনের সময় বালুচাপায় জয়নুল হক (৫০) নামের এক পাথরশ্রমিক নিহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের মান্দুলপাড়া এলাকায় ডাহুক সেতুর কাছাকাছি ভারতীয় সীমান্তঘেঁষা ডাহুক নদে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত পাথরশ্রমিক জয়নুল হক একই ইউনিয়নের মণ্ডলপাড়ার বাসিন্দা।

প্রত্যক্ষদর্শী পাথরশ্রমিকদের বরাত দিয়ে বুড়াবুড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. তারেক হোসেন বলেন, সকালে জয়নুল হকসহ ১০ থেকে ১৫ জন শ্রমিকের একটি দল ডাহুক নদে পাথর তুলতে নামেন। এ সময় নদীর গর্তের পানির নিচ থেকে তাঁরা লোহার যন্ত্রপাতি দিয়ে পাথর তুলছিলেন। বেলা ১১টার দিকে পানিতে ডুব দিয়ে লোহার যন্ত্রপাতি চেপে ধরেন জয়নুল। আর অন্য শ্রমিকেরা যন্ত্রপাতিতে লাগানো দড়ি টেনে তুলছিলেন।

আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার বুড়াবুড়ি ইউনিয়নের মান্দুলপাড়া এলাকায় ডাহুক সেতুর কাছাকাছি ভারতীয় সীমান্তঘেঁষা ডাহুক নদে এ ঘটনা ঘটে।

একপর্যায়ে জয়নুল ডুব দেওয়ার পর আর তাঁকে টেনে তোলা সম্ভব হচ্ছিল না। সঙ্গে সঙ্গে অপর শ্রমিকেরা নিচে নেমে দেখেন, গর্তের ওপরে থাকা বালু ভেঙে পড়ায় চাপা পড়েছেন জয়নুল। এরপর শ্রমিকেরা স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় বেশ কিছুক্ষণ চেষ্টা করেও তাঁকে তুলতে না পেরে তেঁতুলিয়া ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এসে প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে মৃত অবস্থায় পাথরশ্রমিক জয়নুলকে উদ্ধার করেন।

তেঁতুলিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু সায়েম মিয়া বালু চাপা পড়ে ওই পাথরশ্রমিকের নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যুর একটি মামলা করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন