বিজ্ঞাপন

করোনায় আক্রান্ত এই দুজন ভারতফেরত ব্যক্তির মধ্যে একজনের সঙ্গে আসা তাঁর ছেলেকে বাবার সেবা করার জন্য হাসপাতালে থাকার সুযোগ দেওয়া হয়েছে।

default-image

ভারত থেকে আসা বাকি ১৩০ জনকে চুয়াডাঙ্গার ভিমরুল্লাহ এলাকায় অবস্থিত কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ডরমিটরি, জাফরপুরের যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ডরমিটরি এবং শহরের ভিআইপি আবাসিক হোটেলে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

এই নিয়ে গত তিন দিনে ভারত থেকে মোট ২১৬ জন দর্শনা বন্দর হয়ে প্রবেশ করলেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক মো. নজরুল ইসলাম সরকার জানান, আর্থিকভাবে সচ্ছল ব্যক্তিরা নিজ খরচে আবাসিক হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকছেন। যাঁদের আর্থিক সক্ষমতা তুলনামূলক কম, তাঁদের নিখরচায় থাকার সুযোগ দিতে সরকারি দুটি প্রতিষ্ঠানের ডরমিটরি নির্বাচন করা হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন