বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

লিখিত অভিযোগে মহিবুল আলম বলেন, আজ সকালে বেতাগী সানকিপুর ইউপি কমপ্লেক্সের সামনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মশিউর রহমানের বাবা মরহুম হাবিবুর রহমান ঢালীর ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন পটুয়াখালী-৩ (দশমিনা-গলাচিপা) আসনের সাংসদ এস এম শাহজাদা। এ সময় তিনি ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। সাংসদ তাঁর বক্তব্যে বলেন, ‘নৌকার বিরুদ্ধে যারা নির্বাচন করে, তারা সন্ত্রাসী বাহিনী। তাদের ভোটকেন্দ্রে এজেন্ট দিতে দেওয়া হবে না।’

স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মহিবুল আলম রিটার্নিং কর্মকর্তার বরাবরে সাংসদ এস এম শাহাজাদার বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছেন। সাংসদ শাহাজাদা প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার ভাগনে।

মহিবুল আলম অভিযোগ করেন, এভাবে প্রতিনিয়ত স্থানীয় সাংসদ নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করায় সাধারণ ভোটারের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। নৌকা প্রতীকের কর্মী ও বহিরাগত সন্ত্রাসী বাহিনী নির্বাচনের দিন ভোটকেন্দ্র দখল করে নেবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এতে সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করছেন তিনি। সাংসদের আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে ইউপি নির্বাচন আচরণ বিধিমালা অনুয়ায়ী যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে সব প্রার্থীর জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড ও ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিতের দাবি জানান তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাংসদ এস এম শাহাজাদা মুঠোফোনে প্রথম আলোকে বলেন, ‘আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছি কি না, সেটা যাঁদের কাছে অভিযোগ দিয়েছে, তাঁরা দেখবেন।’ তিনি বলেন, মরহুম হাবিবুর রহমান ঢালী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। আজ তাঁর ১১তম মৃত্যুবার্ষিকীর স্মরণসভা ছিল। সেখানে উপজেলা আওয়ামী লীগের সব নেতাই ছিলেন। এখানে নির্বাচনী কোনো প্রচারণা হয়নি। তাহলে আচরণবিধি লঙ্ঘন হলো কীভাবে!

রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জিয়াউর রহমান অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ইউপি নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে কি না, তা দেখার জন্য একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করছেন। বিষয়টি তাঁকে জানানো হয়েছে। বিষয়টি তিনি দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন