default-image

যশোরের চৌগাছা উপজেলায় দাঁড়িয়ে থাকা একটি ট্রাকে চলন্ত মোটরসাইকেলের ধাক্কায় মোটরসাইকেলচালকের মৃত্যু হয়েছে। আজ সোমবার ভোরে চৌগাছা উপজেলা সদরের ডিভাইন গার্মেন্টসের সামনে চৌগাছা-যশোর সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোটরসাইকেলচালকের নাম মো. আলমগীর (৫০)। তিনি যশোরের শার্শা উপজেলার শালকোনা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের ছেলে। চৌগাছা উপজেলার মসিয়ূর নগর বাজারে তাঁর একটি চায়ের দোকান আছে। তিনি ওই বাজারে নৈশপ্রহরীর দায়িত্ব পালন করতেন।

ওই স্থানের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে পুলিশ জানায়, রোববার দিবাগত রাত তিনটার দিকে উপজেলা সদরের ডিভাইন গার্মেন্টসের সামনে চৌগাছা-যশোর মহাসড়কের এক পাশে একটি ট্রাক এসে দাঁড়ায়। সেখানে ট্রাক রেখে চালক বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। আজ সোমবার ভোরে ডিউটি শেষে আলমগীর মোটরসাইকেল চালিয়ে চৌগাছা পৌর শহরের বাকপাড়ায় ভাড়া বাড়িতে ফিরছিলেন। ভোররাত ৪টা ৩৬ মিনিটের দিকে তিনি ডিভাইন গার্মেন্টসের সামনে পৌঁছান। একই সময় মহাসড়কের অপর পাশ দিয়ে হেডলাইট জ্বালিয়ে দুটি ইঞ্জিনচালিত ভটভটি যাচ্ছিল। ইঞ্জিনচালিত ভটভটি দুটিকে সাইড দিতে গিয়ে তিনি নিয়ন্ত্রণ হারান। এ সময় মোটরসাইকেলটি দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকের পেছনে ধাক্কা দেয়। এতে চালক মো. আলমগীর ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপালে পাঠায়।

চৌগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে চৌগাছা থানায় অপমৃত্যুর একটি মামলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন