বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ওই ব্যক্তিগত গাড়ির আরোহী উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দা রেজাউল করিম বলেন, শুক্রবার সকাল থেকে কঠোর বিধিনিষেধের কারণে বৃহস্পতিবার বিকালে ভাড়ায় চালিত একটি ব্যক্তিগত গাড়িতে করে দাউদকান্দির দৌলতপুর গ্রামের চাকরিজীবী মনির হোসেন, তাঁর স্ত্রী খাদিজা আক্তার, দুই বছরের ছেলে আবদুল্লাহ, সাত বছরের ছেলে ফুয়াদ, ভগ্নিপতি রেজাউল করিম ও প্রতিবেশী রেজাউলকে নিয়ে ঢাকায় রওনা দেন।

ব্যক্তিগত গাড়িটি ইছাপুর গ্রামের কাছে পৌঁছালে হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে পানিতে ডুবে গেলে আবদুল্লাহ ঘটনাস্থলেই মারা যায় এবং পাঁচ আরোহী আহত হন। ব্যক্তিগত গাড়ির চালক মো. শাহীনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন