বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

কুমিল্লার চান্দিনার বল্লারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মলিনা রানী সরকার বলেন, দাউদকান্দি থেকে চান্দিনায় যেতে ১০০ টাকা ভাড়া দিতে হচ্ছে। তিন গুণের বেশি নেওয়া হচ্ছে। এতে যাত্রীদের ভোগান্তি ও টাকার অপচয়—দুটোই হচ্ছে।

লাকসামের নাঙ্গলকোটের রাজমিস্ত্রি মিন্টু মিয়া বলেন, তিনি হোমনা সদরে কাজে এসেছিলেন। তাঁর ছেলে কয়েক দিন ধরে অসুস্থ। নিরুপায় হয়ে তিনি বাড়িতে রওনা দিচ্ছেন। কিন্তু সড়কে কোনো যান না থাকায় তিনি দীর্ঘক্ষণ ধরে গৌরীপুর বাসস্ট্যান্ডে অপেক্ষা করছেন বলে জানান।

এদিকে ধর্মঘটের কারণে বিপাকে পড়েছেন পরিবহনশ্রমিকেরা। কমপক্ষে পাঁচজন শ্রমিকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ধর্মঘটের কারণে দুদিন ধরে কোনো আয়-রোজগার নেই। খুব কষ্টে দিন পার করতে হচ্ছে বলে জানান তাঁরা।

সড়কে কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পুলিশ সদস্যদের টহল দিতে দেখা গেছে। জানতে চাইলে দাউদকান্দি মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ ফারুক আহম্মেদ বলেন, যাত্রীদের নির্বিঘ্নে যাতায়াত নিশ্চিত করতে পুলিশ সার্বক্ষণিক দায়িত্ব পালন করছে।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন