default-image

দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১৫।

এর আগে গতকাল শনিবার রাতে ভারত থেকে ফেরত এসে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন কান্তলাল সাহা (৬৫)। গত ১৪ এপ্রিল ভারত থেকে দেশে ফেরেন তিনি। শারীরিকভাবে অসুস্থ বোধ করলে ১৭ এপ্রিল তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে ২৫ এপ্রিল দিনাজপুরের এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল তাঁর মৃত্যু হয়।

করোনায় মারা যাওয়া অন্যরা হলেন সদর উপজেলার মুসা চৌধুরী (৫৮), হারিসুল ইসলাম (৩০), খলিলুর রহমান (১০০) ও ওয়াহেদ আলী (৫৬)। মৃত্যুবরণকারী প্রত্যেকেই গত ২১ এপ্রিল থেকে বিভিন্ন সময়ে এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

বিজ্ঞাপন

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ২০ জন। আক্রান্তের হার ১৪ দশমিক ২৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৪১৩ জন। সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ১৮ জন। বর্তমানে রোগীর সংখ্যা ২৮০। তাঁদের মধ্যে হাসপাতালে আছেন ৩৮ জন এবং হোম আইসোলেশনে আছেন ২৪২ জন।

জেলা সিভিল সার্জন আবদুল কুদ্দুস বলেন, ভারত থেকে ফিরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দিনাজপুরে এটিই প্রথম মৃত্যুর ঘটনা। যাঁরা মৃত্যুবরণ করেছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাঁদের কবরস্থ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, মার্চের শেষ সপ্তাহ থেকে অদ্যাবধি করোনা সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখী। মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে শুরু করেছে এই মাস থেকে। মার্চে মৃত্যু হয়েছিল ৪ জনের, এপ্রিলে ৯ জনের। সেখানে চলতি মাসের দুই দিনের ব্যবধানেই পাঁচজন মারা গেছেন। এ সময় করোনা সংক্রমণ রোধে প্রত্যেককে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন