বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

হাজেরা বেগম বলেন, গতকাল সকাল পৌনে নয়টার দিকে তাঁর বোনের একটি মেয়েসন্তান হয়। বেলা তিনটার দিকে তিনি বোনকে শৌচাগারে নিয়ে যান। এ সময় পাশে থাকা এক নারী নবজাতক মেয়েকে তাঁর কাছে রেখে যেতে বলেন। তাঁরা ওই নারীর কোলে নবজাতককে দেন। শৌচাগার থেকে ফিরে ওই নারীকে আর দেখতে পাননি। নবজাতককেও পাননি।

হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা পারভেজ সোহেল রানা বলেন, চুরির ঘটনা জানার সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত কার্যক্রম শুরু করেছে।

প্রসূতির স্বজনদের কাছ থেকে জানা গেছে, মোছা. জায়েদা বেগমের আগে তিনটি মেয়েসন্তান আছে। গতকাল চতুর্থ মেয়ের জন্ম হয়।

কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শামীম বলেন, এ চুরির ঘটনার সঙ্গে যুক্ত বোরকাপরা এক নারী। পুলিশ মোটামুটিভাবে ওই নারীকে শনাক্ত করতে পেরেছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এখন কিছু বলা যাচ্ছে না।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন